অস্ট্রেলিয়ায় বঙ্গবন্ধু পরিষদের জাতীয় শোক দিবস পালন

উন্নয়ন ডেস্ক –

প্রতি বছরের মতো এবারও সিডনির মিন্টোর রণমোর কমিউনিটি হলে শ্রদ্ধার সাথে জাতীয় শোক দিবস পালন করেছে বঙ্গবন্ধু পরিষদ অস্ট্রেলিয়া।

গতকাল ১৩ অগাস্ট (শনিবার) সংগঠনের সভাপতি ড. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ড. প্রদীপ রায়হান এর সঞ্চালনায় শোক সভায় ক্যানবেরা থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে প্রধান অতিথি ছিলেন অস্ট্রেলিয়াতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত সুফিউর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কনসাল জেনারেল মো. শাখাওয়াৎ হোসেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন ম্যাকুরি বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের প্রাক্তন ডিন এমিরিটাস প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম। মূল আলোচক ছিলেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি ড. সিরাজুল হক, বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি ড. রতন কুন্ডু, কৃষিবিদ ড. নিজাম উদ্দিন আহমেদ, বীর মুক্তিযাদ্ধা মো. শাহাদৎ হোসেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদের প্রাক্তন সভাপতি বীর মুক্তিযাদ্ধা ওসমান গনি ও কাউন্সিলর মাসুদ চৌধুরী প্রমুখ।
বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান সূচনা হওয়ার পর ১৫ আগস্ট নিহতদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। পবিত্র কোরান থেকে পাঠ করেন কৃষিবিদ নজরুল ইসলাম, গীতা পাঠ করেণ শ্রী হারাণ সরকার, ত্রিপিটক থেকে পাঠ করেন জিনাশীষ বড়ুয়া। পরে দোয়া পরিচালনা করেন কৃষিবিদ নজরুল ইসলাম।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী যথাক্রমে পাঠ করে শোনান সংগঠনের সহ সভাপতি সৈয়দ সিরাজুল ইসলাম ও প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক রফিক উদ্দিন।

প্রধান বক্তা এমিরিটাস প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন, সরকারের আইন প্রণয়ন ও তার বিশ্বায়নের উপর নিবন্ধ পাঠ করেন। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন অস্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবী ড. সিরাজুল হক ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

কনসাল জেনারেল শাখাওয়াৎ হোসেন তার বক্তব্যে অগাস্ট ট্রাজেডির সবার রুহের মাগফেরাত কামনা করে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে সবাইকে দেশে বিদেশে নিরলস কাজ করার আবেদন জানান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে হাইকমিশনার বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা ও তাঁর তনয়া জননেত্রী শেখ হাসিনার নিরলস পরিশ্রম ও মেধা দিয়ে দেশকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে নিয়ে যাওয়ার জন্য সাধুবাদ জানান। সমাপনী বক্তব্যে ড. রফিকুল ইসলাম অষ্ট্রেলিয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পি এস চুন্নু, মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বিলকিস জাহানসহ শুভাকাঙ্ক্ষী, সিডনির অন্যান্য সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, কলাকুশলী ও আগত সবাইকে ধন্যবাদ এবং সবাইকে নৈশভোজে আমন্ত্রণ জানিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

এরপর সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফারিয়া ইসলামের সঞ্চালনায় বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের উপর কবিতা আবৃত্তি করেন মোস্তাক আহমেদ ও পূরবী বড়ুয়া। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ও দেশের গান পরিবেশন করেন ফারিয়া আহমেদ, নিলুফা ইয়াসমিন ও লামিয়া আহমেদ।

অনুষ্ঠানকে সুন্দর ও সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য সার্বিকভাবে সহযোগিতা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সাহাদাত হোসেন, মালিক সাফি জাকি, আব্দুস সোবহান, মুস্তাফিজ তালুকদার, ড. রঞ্জনা সরকার, মিলি ইসলাম প্রমূখ।