আরজেএফ আজীবন সম্মাননা পদক পেলেন লায়ন গনি মিয়া বাবুল

উন্নয়ন বার্তা প্রতিবেদন:
বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল সাংগঠনিক কার্যক্রমে ও সমাজসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় ‘আরজেএফ আজীবন সম্মাননা পদক-২০২২’ এ ভূষিত হয়েছেন। রুর‌্যাল জর্নালিস্ট ফাউন্ডেশন (আরজেএফ) এর উদ্যোগে মহান বিজয় দিবস ২০২২ উপলক্ষে ঢাকার সেগুনবাগিচাস্থ কচিকাঁচা মিলনায়তনে ৭ জানুয়ারি, শনিবার বিকেলে আয়োজিত ‘মহান মুক্তিযুদ্ধ-বিজয় ও নতুন প্রজন্ম’ শীর্ষক আলোচনাসভা ও আরজেএফ সাহিত্য-সাংস্কৃতিক উৎসবের প্রধান অতিথি বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি নিজামুল হক নাসিম আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে এই সম্মাননা পদক প্রদান করেন।
অনুষ্ঠানে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা ইসমত কাদির গামা। প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মিজবাহুর চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, এস এ টিভির হেড অব নিউজ মাহমুদ আল ফয়সাল, জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট সাহিদা রহমান রিংকু ও বাংলাদেশ বিনোদন সাংবাদিক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান লায়ন এইচ এম ইব্রাহিম ভূঁইয়া।
আরজেএফ’র চেয়ারম্যান এস এম জহিরুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে ও ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব আল-আমিন শাওন এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সাংবাদিক, কবি-সাহিত্যিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, লায়ন মোঃ গনি মিয়া বাবুল দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও সাংবাদিক সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ পদে প্রশংসার সাথে স্বীয় দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বাংলাদেশের গণমাধ্যমে একটি পরিচিত নাম লায়ন গনি মিয়া বাবুল। তিনি গাজীপুর থেকে প্রকাশিত দৈনিক গণমুখ (তৎকালীন সাপ্তাহিক) পত্রিকায় ১৯৮৭ সালে সাংবাদিকতা শুরু করেন। পরবর্তীতে দেশের বহুপ্রচারিত দৈনিক খবর পত্রিকায় তিনি ১৯৮৮ সাল থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত প্রশংসার সাথে স্বীয় দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেন। তিনি দৈনিক প্রভাত, দৈনিক প্রাইম, দৈনিক মুক্তসংবাদ, দৈনিক জনসংবাদ, বার্তা সংস্থা ফেয়ার নিউজ সার্ভিস-এফএনএস প্রভৃতি প্রতিষ্ঠানে সাংবাদিক হিসেবে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছেন। বর্তমানে তিনি দেশের জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিরাপদ নিউজ ডটকম এ যুগ্ম সম্পাদক এবং বাংলাদেশ সংবাদের সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি দৈনিক ভোরের সময়ের উপদেষ্টা ও সাপ্তাহিক ঝুমুর পত্রিকার প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন।
তিনি বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের মাধ্যমে ও ব্যক্তিগতভাবে আর্তমানবতার সেবায় নিয়োজিত রয়েছেন। ইতিমধ্যে তিনি মানবসেবায় বিশেষ অবদান রাখায় আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ‘মেলভিন জোন ফেলো-এমজেএফ’ উপাধিসহ শতাধিক জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন। তিনি প্রায় ৩০ বছর যাবত সর্বস্তরে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে কাজ করে আসছেন। তিনি বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধকে নিয়ে গবেষণা করছেন এবং তার গবেষণালব্ধ প্রবন্ধ, নিবন্ধ ও কলাম বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক গণমাধ্যমে প্রকাশ ও প্রচার হয়ে আসছে। তার এসকল লেখা ইতোমধ্যে যথেষ্ট পাঠকপ্রিয়তা অর্জন করেছে। তার নিজ জন্মস্থান গাজীপুর জেলার শ্রীপুরে স্কুল, মসজিদ, মাদ্রাসা, শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্র, পাঠাগার প্রভৃতি জনহিতকর প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় মূখ্য ভূমিকা পালন করে আসছেন। বিভিন্ন জাতীয় ও আঞ্চলিক সংবাদপত্রে প্রবন্ধ, কবিতা ও ছড়া লেখে তিনি ইতোমধ্যে যথেষ্ট পরিচিতি লাভ করেছেন। তিনি উক্ত আজীবন সম্মাননা পদকে ভূষিত হওয়ায় বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।