জুন ১৩, ২০২৪

আমাদের সম্পর্কে আরো জানুনঃ

এশিয়া কাপ প্রস্তুতির সিরিজ শুরু করছে পাকিস্তান-আফগানিস্তান

শ্রীলংকার মাটিতে আগামীকাল থেকে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। মূলত এই সিরিজকে এশিয়া কাপের প্রস্তুতির মঞ্চ হিসেবে বেছে নিয়েছে দু’দল। এজন্য দল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পাশাপাশি সিরিজে সাফল্য পেতে  বদ্ধপরিকর পাকিস্তান ও আফগানিস্তান উভয় দলই।
আফগানিস্তানের হোম সিরিজের প্রথম ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময়  দুপুর ২টায়।
আগামী ৩০ আগস্ট থেকে শুরু হবে এশিয়া কাপের ১৬তম আসর। মূল আয়োজক পাকিস্তান। তবে ভারতীয় দল পাকিস্তান সফরে রাজি না হওয়ায় এশিয়া কাপের বেশ কিছু ম্যাচ  অনুষ্ঠিত হবে শ্রীলংকায়।  এশিয়া কাপের প্রস্তুতি হিসেবে শ্রীলংকার মাটিতে তিন ম্যাচের সিরিজ খেলার সুযোগ পাচ্ছে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান।
এবারই দ্বিপাক্ষিক প্রথম তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ খেলবে পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। এর আগে এক ম্যাচের সিরিজ খেলেছিলো তারা। ২০১২ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচটি ছিলো দু’দলের মধ্যকার প্রথম সাক্ষাৎ। এরপর এশিয়া কাপে দু’বার ও গত বিশ্বকাপ একবার মুখোমুখি হয়েছিলো দু’দল। সর্বমোট চারবারের দেখায় সবগুলোাতেই জয় পায় পাকিস্তান।
অতীতের রেকর্ডের চেয়ে এশিয়া কাপকে সামনে রেখে নিজেদের প্রস্তুত করতেই বেশি মনোযোগী পাকিস্তানের। দলের অধিনায়ক বাবর আজম বলেন, ‘আগামী সপ্তাহেই এশিয়া কাপ শুরু । এশিয়া কাপের প্রস্তুতি এই সিরিজ থেকে নিতে হবে আমাদের। আশা করছি তিন বিভাগেই ভালো খেলবে ছেলেরা।’
পাকিস্তানের মত একই লক্ষ্য আফগানিস্তানেরও। দলের অধিনায়ক হাশমতুল্লাহ শাহিদি বলেন, ‘এশিয়া কাপের আগে ওয়ানডে সিরিজ অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এশিয়া কাপে ভালো করতে হলে, এই সিরিজেও নিজেদের ভালোভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে আমাদের। আশা করছি. এই সিরিজ দিয়েই দলের ভুল-ক্রুটিগুলো শুধরে নিতে পারবো আমরা।’
আফগানিস্তান  সিরিজে  ২০২১ সালের জুলাইয়ের আবারও পাকিস্তান দলে ফিরেছেন অলরাউন্ডার ফাহিম আশরাফ। এক বছর পর দলে ফিরেছেন মিডল-অর্ডার ব্যাটার সৌদ শাকিলও। আফগানিস্তানের সিরিজের এই দলই এশিয়া কাপে খেলাবে পাকিস্তান। শুধুমাত্র এই দল থেকে বাদ যাবেন শাকিল।
এ দিকে পাকিস্তান  সিরিজের জন্য ১৮ বছর বয়সী বাঁ-হাতি স্পিনার নূর আহমাদকে দলে ফিরিয়েছে আফগানিস্তান। দেশের হয়ে ৩ ওয়ানডেতে ২টি ও ১টি টি-টোয়েন্টিতে ৪টি উইকেট নিয়েছেন নূর।
সর্বশেষ বাংলাদেশের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে দারুন পারফরমেন্সের সুবাদে দলে নিজেদের জায়গা ধরে রেখেছেন পেসার মোহাম্মদ সেলিম সাফি এবং ওয়াফাদার মোমান্দ।
এ বছরের মার্চে টি-টোয়েন্টিতে সর্বশেষ মুখোমুখি হয়েছিলো পাকিস্তান ও আফগানিস্তান। আরব আমিরাতের মাটিতে অনুষ্ঠিত তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছিলো আফগানরা।
সিরিজের বাকী দুই ওয়ানডে হবে ২৪ ও ২৬ আগস্ট। ওয়ানডে সিরিজ শেষে এশিয়া কাপের জন্য পাকিস্তান উড়াল দিবে দু’দল। লাহোরে ৩ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের বিপক্ষে এবং ৫ সেপ্টেম্বর শ্রীলংকার বিপক্ষে খেলবে আফগানিস্তান। মুলতানে ৩০ আগস্ট এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে নেপালের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান।
আফগানিস্তান দল : হাশমতুল্লাহ শাহিদি (অধিনায়ক), রহমানুল্লাহ গুরবাজ, ইকরাম আলিখিল, ইব্রাহিম জাদরান, রিয়াজ হাসান, রহমত শাহ, নাজিবুল্লাহ জাদরান, মোহাম্মদ নবি, আজমতুল্লাহ ওমরজাই, রশিদ খান, নূর আহমেদ, মুজিব উর রহমান, ফজল হক ফারুকি, আবদুল রহমান, মোহাম্মদ সেলিম সাফি এবং ওয়াফাদার মোমান্দ।
পাকিস্তান দল : বাবর আজম (অধিনায়ক), ফখর জামান, মোহাম্মদ রিজওয়ান, শাদাব খান, আবদুল্লাহ শফিক, ফাহিম আশরাফ, হারিস রউফ, ইফতেখার আহমেদ, ইমাম-উল-হক, মোহাম্মদ হারিস, মোহাম্মদ ওয়াসিম, নাসিম শাহ, আগা সালমান, শাহিন শাহ আফ্রিদি, তায়েব তাহির, উসামা মির, মোহাম্মদ নওয়াজ ও সৌদ শাকিল।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Reddit