জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের সম্পর্কে আরো জানুনঃ

ঘরের জিনিসপত্র কীভাবে জীবাণুমুক্ত রাখবেন?

অনলাইন ডেস্ক:
করোনাভাইরাস মোকাবিলা ও প্রতিরোধে সঙ্গীরোধে (কোয়ারেন্টাইন) থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। সেই সাথে অন্যদের কাছ থেকে অন্ততপক্ষে ছয় ফিট দূরত্ব বজায় রেখে চলা ও হাতের সাহায্যে মুখে স্পর্শ না করার প্রতি জোর দেওয়া হচ্ছে শুরু থেকেই। এই নিয়মগুলো কঠিনভাবে পালন করতে পারলেই নিজেকে নিরাপদ দূরত্বে রাখা সম্ভব হবে করোনাভাইরাসের মতো মহামারীর হাত থেকে।
তবে নিজ ঘরে থাকাকালীন সময়েও কিছু আবশ্যিক নিয়ম মেনে চলতে হবে। নিজেকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, খাবার ভালোভাবে ও সম্পূর্ণ সিদ্ধ করে খাওয়া, পরিবারের অন্য সদস্যদের মাঝে দূরত্ব বজায় চলাসহ কিছু বিষয়ে নজর রাখতে হবে সঙ্গীরোধে থাকাকালীন সময়েও।
পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার প্রসঙ্গে চলে আসে, ঘরের জিনিসপত্র জীবাণুমুক্ত রাখার বিষয়টি। গবেষণায় ধরা পড়েছে- বাতাসে করোনাভাইরাস থাকতে পারে তিন ঘন্টা পর্যন্ত, কপারে ৪ ঘন্টা পর্যন্ত, কার্ডবোর্ডে ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত এবং প্লাস্টিক ও স্টেইনলেস স্টিলে ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত।
এ কারণে ঘরের বিভিন্ন জিনিস পরিষ্কার ও জীবাণুমুক্ত রাখার দিকেও খেয়াল করতে হবে। দরজা-জানালার হাতল, টিভি-এসির রিমোট, লাইট-ফ্যানের সুইচ, টেবিলের উপরিভাগ, চেয়ার, হ্যান্ড শাওয়ার, আলমারি-ফ্রিজের হাতলসহ যে সকল জিনিসে অহরহ স্পর্শ করা হয়, সে জিনিসগুলো প্রতিদিন অন্তত দুইবার জীবাণুমুক্ত করা প্রয়োজন।
এর জন্য দোকানে সহজলভ্য জীবাণুনাশক তরল ব্যবহারেই কাজ হবে। তবে জীবাণুনাশক তরল পাওয়া না গেলে ঘরেই তৈরি করে নিতে হবে। এর জন্য ২৫০ এম.এল পানিতে এক চা চামচ ব্লিচিং পাউডার ভালোভালে মিশিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এরপর পরিষ্কার কাপড়ের সাহায্যে পরিষ্কার করতে হবে। এ সময়ে নিজের সুরক্ষার জন্য গ্লভস ব্যবহার করতে হবে।
সতর্কতা: ব্লিচিং পাউডার খুব শক্তিশালী পরিষ্কারক পণ্য হওয়ায় এতে পানি ব্যতীত অন্য যেকোন ধরনের উপাদান মেশান থেকে বিরত থাকতে হবে। #

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Reddit