টেকনাফের হোয়াইক্যং-শামলাপুর সড়কে দিনেদুপুরে ডাকাতি

উন্নয়ন ডেস্ক –

কক্সবাজার টেকনাফের হোয়াইক্যং-শামলাপুর সড়কে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতদল নগদ ১০-১৫ লাখ টাকা ও স্বর্ণসহ বিভিন্ন মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে।

শনিবার (১৮ জুন) সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ব্যারিকেড দিয়ে ডাকাতি করে একটি সংঘবদ্ধ চক্র ।

ভুক্তভোগীরা জানান, সহজ যাতায়াতের কারণে স্থানীয়, এনজিওকর্মী, শিক্ষার্থীরা হোয়াইক্যং-শামলাপুর বাহারছড়া সড়কটি ব্যবহার করেন। কিন্তু এ সড়কে বেশ কিছু এলাকায় দু’ধারে পাহাড় (স্থানীয়ভাবে ঢালা নামে পরিচিত) রয়েছে। সেখানে ডাকাতদল হানা দিয়ে সহজে পাহাড়ের ভেতর চলে যেতে পারে।

ভুক্তভোগীরা আরও জানান, আজ (শনিবার) সকালেও একইভাবে কক্সবাজার, বাহারছড়াসহ হোয়াইক্যং এলাকার সিএনজি, টমটম ও এনজিও সংস্থার গাড়ি হোয়াইক্যং-শামলাপুর সড়ক দিয়ে বিভিন্ন গন্তব্য যাচ্ছিল। হঠাৎ সড়কে ১০-২০ জনের একটি ডাকাত দল রাস্তায় ব্যারিকেড দেয়। তারা রাস্তার দু’ধার থেকে আসা গাড়ি দাঁড় করিয়ে অস্ত্রের মুখে যাত্রীদের জিম্মি করে নগদ টাকা, স্বর্ণ, মোবাইলসেটসহ বিভিন্ন মালামাল কেড়ে নেয়।

ভুক্তভোগী আমিনুল হক জানান, টমটম নিয়ে শামলাপুর বাজার থেকে হোয়াইক্যং যাওয়ার পথে হোয়াইক্যং-শামলাপুর সড়কে একটি ডাকাত দল সড়কে ব্যারিকেড দিয়ে যাত্রীদের নামিয়ে মারধরসহ তাকেও মারধর করে টাকা ও মোবাইল সেট নিয়ে যায়।

বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরিদর্শক নুর মোহাম্মদ বলেন, ‘ডাকাতির খবর পেয়ে আমরা দ্রুত সেখানে যাই। আমরা যাওয়ার আগে ঘটনাস্থল থেকে ডাকাত দল পালিয়ে যায়। তাদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।’