প্রচন্ড লড়াইয়ের মুখে পূর্বাঞ্চল থেকে পিছু হটেছে রাশিয়ার সৈন্যরা : দাবি ইউক্রেনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক –

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দনবাস অঞ্চলে রাশিয়ার সৈন্যরা কামান হামলা চালিয়ে এবং তারা দেশটির সেভারোদনেৎস্ক নগরীতে প্রচ- যুদ্ধের মুখে পড়েছে। এ দিকে স্থানীয় গভর্ণর বলেছেন, সেখানে প্রতিরোধ যুদ্ধের মুখে আগ্রাসনকারীরা কিছুটা পিছু হটেছে। খবর এএফপি’র।

প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন ইউক্রেনে রুশ বাহিনীকে অভিযান চালানোর নির্দেশ দেয়ার পর একশ’ দিন পেরিয়েছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ হামলা শুরু হয়। এখন থেকে ইউক্রেনে কয়েক হাজার মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। যুদ্ধের কারণে লাখ লাখ মানুষ দেশ ছেড়ে পালিয়েছে। দেশটির বিভিন্ন শহর ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে।

রুশ বাহিনীর প্রধান লক্ষ্য ছিল ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের দখল নেয়া। তবে ইউক্রেন বাহিনীর প্রচন্ড প্রতিরোধের মুখে তা অনেকটা গতি হারানোয় তারা এখনো কিয়েভ দখল করতে পারেনি। ফলে বাধ্য হয়ে রুশ বাহিনী এখন দনবাসসহ পূর্বাঞ্চল দখলের ওপর বেশি গুরুত্ব দিচ্ছে।

সেভারোদনেৎস্ক’র কিছু এলাকায় প্রচ- লড়াই চলছে। সেখানে ইউক্রেন বাহিনী ব্যাপক প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে।
লুগানস্ক আঞ্চলিক গভর্ণর সার্গি গইদে শুক্রবার বলেন, ‘তারা (রাশিয়ার সৈন্য) এ অঞ্চলের পুরোপুরি দখল নিতে পারে নি। তিনি আরো বলেন, সেখানে প্রচ- প্রতিরোধের মুখে আগ্রাসী বাহিনী ‘২০ শতাংশ’ পিছু হটেছে।