জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের সম্পর্কে আরো জানুনঃ

প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নথিভুক্ত করছে রাশিয়া

উন্নয়ন ডেস্ক –

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে যখন দেশে দেশে বিপর্যস্ত অবস্থা, ঠিক তখন বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন ব্যবহারের জন্য নথিভুক্ত করতে যাচ্ছে রাশিয়া। আগামী দুইদিনের মাথায় অর্থাৎ ১২ আগস্ট এই ভ্যাকসিন আনুষ্ঠানিক নথিভুক্তির ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। তার পরই কয়েকদিনের মধ্যে সেটি বাজারে ছাড়া হবে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

রাশিয়ার পক্ষ থেকে দাবি করা হচ্ছে, করোনা থেকে মুক্তি দিতে সক্ষম তাদের তৈরি এই ভ্যাকসিন। গামালেই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি এবং রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রক যৌথভাবে এই কোভিড প্রতিষেধক তৈরি করেছে।

ভ্যাকসিন নিয়ে শুক্রবার রাশিয়ার উপ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওলেগ গ্রিডনেভ বলেন, ১২ আগস্ট প্রথম করোনা ভ্যাকসিন নথিভুক্ত করবে রাশিয়া। তিনি বলেন, এই মুহূর্তে ভ্যাকসিনটির তৃতীয় এবং চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়াল চলছে। এই ট্রায়াল প্রক্রিয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই ভ্যাকসিন যাতে সুরক্ষিত হয়, তা সম্পূর্ণ নিশ্চিত করতে হবে। তিনি জানান, প্রথমে চিকিৎসার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি এবং প্রবীণ নাগরিকদের এই ভ্য়াকসিনের দেওয়া হবে।’

নথিভুক্ত করার পর চূড়ান্ত পর্যায়ে এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা এবং সুরক্ষা পরীক্ষা করে দেখা হবে। তখন প্রথমে ১৬০০ জনের ওপর এটি প্রয়োগ করা হবে।

এদিকে দ্রুত ভ্যাকসিন যাতে বাজারে আনা যায়, সে জন্য ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের প্রক্রিয়া কাটছাঁট করতে গত এপ্রিল মাসে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। যে কারণে করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল প্রক্রিয়াও সংক্ষিপ্ত করা হয়েছে।

আর এ কারণেই রাশিয়ার ভ্যাকসিন নথিভুক্তির ঘোষণায় সতর্ক প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থাটি বলেছে, হিউম্যান ট্রায়াল পর্ব জরুরি কিন্তু রাশিয়া তা করেনি। তৃতীয় পর্বের হিউম্যান ট্রায়ালের মধ্যে দিয়ে ভ্যাকসিন না গেলে তা ক্ষতিকর রূপ নিতে পারে।

সংস্থার মুখপাত্র ক্রিষ্টিয়ান লিন্ডমেয়ার বলেছেন, ভ্যাকসিনের ক্ষেত্রে নিরাপত্তা এবং কার্যকারিতা সম্পর্কিত গাইডলাইন আছে। রাশিয়া যেন সেইসব গাইডলাইন মেনে চলে।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Reddit