প্রধানমন্ত্রীর ভারসাম্যের কূটনীতির কারণে অনেকে আমাদের দিকে নজর দিচ্ছেন:পররাষ্ট্রমন্ত্রী

উন্নয়ন বার্তা প্রতিবেদন:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারসাম্যের কূটনীতির কারণে অনেকে এখন বাংলাদেশে আসছেন বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন।

১০ জানুয়ারি মঙ্গলবার নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ভারসাম্যের কূটনীতির কারণে অনেকে এখন আমাদের দিকে নজর দিচ্ছেন। বিশ্বের ৩৫তম দেশে পরিণত হওয়ায় ব্যবসা-বাণিজ্যের অনেক সুযোগ বাংলাদেশে আছে। কেউ এগুলো হাতছাড়া করতে চান না।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এটা আমাদের জন্য সুখবর যে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং ঢাকায় যাত্রাবিরতি করেছেন। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃবৃন্দ এখন ঢাকায় আছেন।

যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের সঙ্গে সম্পর্ক বিষয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে আব্দুল মোমেন বলেন, তাদের সঙ্গে ভারসাম্যমূলক সম্পর্ক রাখা চ্যালেঞ্জিং। আমরা দুই দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে চাই।

আব্দুল মোমেন বলেন, বাংলাদেশ যেভাবে চলছে ও এর উন্নয়ন অভাবনীয় এবং চীন দেশটির সহযোগী হিসেবে কাজ করতে চায়। চীনের মন্ত্রী জানিয়েছেন, ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে জোগান ব্যাহত হচ্ছে, আর্থিক লেনদেনে সমস্যা হচ্ছে এবং নতুন অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে।

এদিকে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক শেষে ঢাকা ত্যাগ করেন চীনের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং। তাকে বহনকারী বিমানটি সোমবার দিবাগত রাত ২টা ৫০ মিনিটে আফ্রিকার উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করে।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কিন গ্যাং প্রায় এক ঘণ্টার জন্য ঢাকায় যাত্রাবিরতি করে গেছেন। সোমবার দিবাগত রাত ১টা ৫৮ মিনিটে তাকে বহনকারী উড়োজাহাজ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এ সময় তাকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন। এরপর দুই পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে একটি বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে রাত ২টা ৫০ মিনিটে ঢাকা ত্যাগ করেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।