জুলাই ১৮, ২০২৪

আমাদের সম্পর্কে আরো জানুনঃ

ফিনল্যান্ডের ফুটবলার বাংলাদেশ দলে ডাক পাচ্ছেন ?

উন্নয়ন ডেস্ক –

১৪ জুলাই ২০২০

‘জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশে এসেছি’, শেষ নভেম্বরে বসুন্ধরা কিংসের জার্সিতে বাংলাদেশ অধ্যায় শুরু করেই নিজের স্বপ্নের কথাটি জানান দিয়েছিলেন কাজী তারিক রায়হান। বছর না পেরুতেই ফিনল্যান্ড প্রবাসী এই ফুটবলারের স্বপ্নের পালে লাগতে যাচ্ছে হাওয়া। বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইপর্বকে সামনে রেখে আগামী মাস থেকে শুরু হতে যাওয়া জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্পে ডাক পেতে পারেন এই তরুণ ডিফেন্ডার। নতুনদের মধ্যে ডাক পেতে পারেন বাংলাদেশ পুলিশের উইঙ্গার ম্যাথিউজ বাবলুও।

বাছাইপর্বের দ্বিতীয় পর্বের বাকি চারটি ম্যাচের জন্য এএফসিকে পাঠানো ৪৪ সদস্যের তালিকায় আছেন তারিক ও বাবলু। প্রাথমিক ক্যাম্পে সেই ৪৪ জনকেই ডাকা হতে পারে। কাটছাঁট করে সংখ্যাটা নামিয়ে আনা হতে পারে ৩৫ এও। এই দুই তরুণের ডাক পাওয়ার ব্যাপারে ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছে জাতীয় দলের প্রধান কোচ জেমি ডের কণ্ঠে।

বাছাইপর্বের বাকি চারটি ম্যাচকে সামনে রেখে আগস্টের প্রথম সপ্তাহ থেকে ক্যাম্প শুরু হতে যাচ্ছে জামাল ভূঁইয়াদের। করোনা কালীন এই সময়ে ক্যাম্প শুরু হবে কোথায়, তা এখনো চূড়ান্ত করতে পারেনি বাফুফে। তবে গাজীপুরের সারা রিসোর্টে আইসোলেশন প্রক্রিয়া দিয়ে শুরু হতে পারে ক্যাম্প। এর পরেই বিবেচনায় আছে বাফুফে ভবন। সময় ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে খেলোয়াড়দের তালিকাও চূড়ান্ত করতে হচ্ছে জেমিকে। অনেকদিন বাদে খেলোয়াড়েরা মাঠে ফেরায় পুরনোদের সঙ্গে পরোখ করার জন্য ডাকা হবে কয়েকজন নতুন খেলোয়াড়।

ফিনল্যান্ড অনূর্ধ্ব–১৯ দলের খেলার অভিজ্ঞতা থাকা তারিকের ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা প্রসঙ্গে জেমি বলেন, ‘আমি কোনো খেলোয়াড়ের নাম এখনও নির্দিষ্ট করে বলতে চাই না। তারিক ক্যাম্পে ডাক পেতে পারে। আমি দেখতে চাই সে কেমন করে সেখানে।’ জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার ব্যাপারে জেমির ডের সঙ্গে ইতিবাচক কথা হয়েছে বলে প্রথম আলোকে নিশ্চিত করেছেন তারিকও, ‘কোচ জেমি ডের সঙ্গে আমার ইতিবাচক কথা হয়েছে। এর বেশি কিছু এখনই বলতে চাই না।’
বর্তমানে ফিনল্যান্ডে অবস্থান করছেন ২০ বছর বয়সী এই তরুণ। চলতি বছর বাতিল হওয়া লিগে দুইটি ম্যাচ খেলেছিলেন তিনি। ফিনল্যান্ডের টপ ক্লাব ইলভেস ট্যাম্পেরের হয়ে ইউরোপা লিগের বাছাইপর্বে একটি ম্যাচে খেলার অভিজ্ঞতা আছে তাঁর।

অন্য তরুণ বাবলুকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন জেমি। পুলিশের এই উইঙ্গারের ভূয়সী প্রশংসা দিয়েই বুঝিয়ে দিয়েছেন তাঁর দলে থাকা নিশ্চিত, ‘গেল মৌসুমটা দুর্দান্ত খেলেছে বাবলু। এই ধারাবাহিকতা বজার রাখতে হবে। ওর ওপর আমি নজর রেখেছি। জাতীয় দলের ক্যাম্পে দেখা যেতে পারে তাঁকে।’ জেমির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে তাঁরও, ‘কোচ আমাকে প্র্যাকটিসের সিডিউল দিয়েছি। আমি সেভাবেই এখন অনুশীলন করছি।’ মাঠ জুড়ে দৌড়াতে দেখাতে যায় ২১ বছর বয়সী এই উইঙ্গারকে। দ্রুতগতিতে আক্রমণে উঠে আবার দ্রুতগতিতে ট্র্যাক ব্যাক করে যোগ দেন রক্ষণে।

মার্চ মাস থেকে খেলার বাইরে আছে ফুটবলাররা। প্রায় পাঁচ মাসের বিরতিতে অনুশীলন শুরু করার পর কোন বিষয়টিকে গুরুত্ব দেওয়া হবে? বর্তমান পরিস্থিতির বিবেচনায় এবার ভিন্ন আঙ্গিকে অনুশীলন হবে বলে জানিয়েছেন জেমি ‘সবার আগে খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা। অনুশীলন শুরু করার পর স্বাভাবিকভাবে ফিটনেসের দিকেই বেশি নজর দিতে হবে। তবে এবার ভিন্ন আঙ্গিকে ফিটনেস অনুশীলনের সঙ্গে স্ট্রেন্থ, ট্যাকটিক্যাল অনুশীলন করব আমরা।

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Reddit