বাংলাদেশের কোনো রাজনৈতিক দলই ৩০ শতাংশ নারী কোটার শর্ত মানেনি: আপিল বিভাগ

উন্নয়ন বার্তা ডেস্ক:

বাংলাদেশের কোনো রাজনৈতিক দলই নিবন্ধন প্রক্রিয়ায় শতকরা ৩৩ জন নারী কোটা রাখার শর্ত মানেনি বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।
রোববার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার দল তৃণমূল বিএনপির নিবন্ধনের মামলার শুনানির সময় এমন মন্তব্য করেন আপিল বিভাগ।
ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার দল তৃণমূল বিএনপির নিবন্ধন নিয়ে মামলার শুনানিতে আদালত বলেছেন, নির্বাচন কমিশন বারবার নোটিশ দিয়েও দলগুলোকে শর্ত মানাতে পারেনি। এ সময় আপিল বিভাগ নির্বাচন কমিশনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, কেন নতুন রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন দিতে চায় না ইসি। নতুন দল দিতে সমস্যা কোথায়? এ সময় ইসি জানায়, অদ্ভুত অদ্ভুত নাম নিয়ে নিবন্ধন নিতে আসে দলগুলো। মানে না শর্তও। পরে আপিল বিভাগ নাজমুল হুদার দল তৃণমূল বিএনপিকে নিবন্ধন দেওয়ার নির্দেশ দেন। বহালও রাখা হয় হাইকোর্টের আদেশ।
ইসির আইনজীবী ব্যারিস্টার মোহাম্মদ ইয়াসীন খান বলেন, অদ্ভূত নামে নিবন্ধন নিতে আসে দলগুলো, এমনকি তারা শর্তও মানে না। জেলা-উপজেলায় পার্টির কার্যালয় থাকতে হবে। দলীয় প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে হবে। এমন যেসব শর্ত দেওয়া হয় ওসবও মানে না। এসব বিষয়সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তোলেন আদালত।
২০১৮ সালের ৪ নভেম্বর নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন তৃণমূল বিএনপিকে রাজনৈতিক দল হিসেবে নিবন্ধন দেওয়ার নির্দেশনা দিয়ে রায় দেন হাইকোর্ট। ওই বছরের ১৪ জুন তৃণমূল বিএনপির নিবন্ধনের আবেদন প্রত্যাখ্যান করে নির্বাচন কমিশন। এই সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন নাজমুল হুদা।
পরে ২০১৮ সালের ১৪ আগস্ট রাজনৈতিক দল হিসেবে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার নেতৃত্বাধীন দল তৃণমূল বিএনপিকে নিবন্ধন দিতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।