বেড়েই চলেছে মাস্কের দাম

ডেস্ক রিপোর্ট
করোনাভাইরাসের প্রভাবে ঢাকার বাজারে সার্জিক্যাল মাস্ক বা মুখোশের দাম বেড়েছে ৮ থেকে ১০ গুণ। ২০ টাকার সার্জিক্যাল মাস্ক বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায় আর ৫৫ টাকার প্যাকেট মাস্ক-এর দাম উঠেছে সাড়ে ৫শ’ থেকে সাড়ে ৬শ’ টাকা।
দাম বৃদ্ধির জন্য আমদানি বন্ধ থাকাকে অজুহাত হিসাবে দেখাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলছেন, প্রয়োজনের সময় মুখোশের ঘাটতি হবে না।
চীনে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় পর দেশেও মুখ ঢাকতে সার্জিক্যাল মাস্ক বা মুখোশ ব্যবহার শুরু করেন অনেকে। দেশে প্রাণঘাতী ভাইরাসটির সংক্রমণ না ঘটলেও বাড়তি সতর্কতা হিসেবে মাস্ক পরছেন নগরবাসী।
দেশের বাজারে হঠাৎ মুখোশের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় প্রভাব পড়েছে দামে। রাজধানীর তোপখানার বিএমএ ভবনে সার্জিক্যাল মার্কেটে যেয়ে দেখা যায় অনেক দোকানই মুখোশ শূন্য। যে সব দোকানে আছে তারাও কয়েকগুণ বেশি দাম রাখছেন।
মুখোশের দাম বৃদ্ধির জন্য আমদানীকারক ও প্রস্ততকারকদের দায়ী করছে পাইকাররা। আর উৎপাদনকারীদের দাবি চীন থেকে কাঁচামাল না আসায় সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।
পরিস্থিতি মোকাবেলায়, জরুরি নোটিশ জারি করে বিএমএ ভবন দোকান মালিক কল্যাণ সমিতি। ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলা হলেও তাতে কাজ হয়নি।
এদিকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আতঙ্কিত হয়ে মুখোশ না কেনার পরামর্শ দেন। তিনি জানান খুব শিগগিরই জাপান থেকে ৭০ লাখ মাস্ক আসবে। #