শিল্পভিত্তিক পাঠ্যক্রম প্রণয়নের ওপর গুরুত্বারোপ

উন্নয়ন ডেস্ক –

শিক্ষা ও ব্যবস্থাপনা উন্নয়ন কর্মসূচিকে কীভাবে আরো বেশি শিল্পমুখী করা যায় তা নিয়ে আলোচনার অনুরোধ জানিয়ে শিল্পভিত্তিক পাঠ্যক্রম প্রণয়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন খাতসংশ্লিষ্টরা। দ্য চিটাগং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (সিসিসিআই) ইনিশিয়েটিভ বাংলাদেশ সেন্টার অব এক্সিলেন্সের (বিসিই) উদ্যোগে করোনা পরিস্থিতিতে ব্যবসা-বাণিজ্য সংক্রান্ত বিষয়ে ‘সার্ভাইভিং দ্য প্যানডেমিক’ ধারাবাহিক আলোচনার পঞ্চম পর্বে ‘এক্সিকিউটিভ এডুকেশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামস থ্রু ডিজিটাল প্লাটফর্ম: প্রিপেয়ার্ডনেস, চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড অপরচুনিটিস’ শীর্ষক ওয়েবিনারে এমনটি জানান আলোচকরা।

চিটাগং চেম্বার সভাপতি ও বিসিইর চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলমের সভাপতিত্বে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত এ ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী। এছাড়া আলোচক হিসেবে অংশ নেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) ভাইস চ্যান্সেলর মেজর জেনারেল আতাউল এইচএস হাসান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের (আইবিএ) পরিচালক প্রফেসর সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার, স্কুল ফর ফিউচার ইনোভেশন ইন সোসাইটি অব আরিজোনা স্টেট ইউনিভার্সিটি ইউএসএর ক্লিনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ড. ফাহিম হুসাইন, দৈনিক প্রথম আলোর হেড অব ইয়ুথ প্রোগ্রাম মুনির হাসান এবং চিটাগং চেম্বার পরিচালক ও বিসিইর ট্রাস্টি বোর্ডের মেম্বার সৈয়দ মোহাম্মদ তানভীর। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিসিইর প্রধান নির্বাহী ওয়াসফি তামিম।

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী চিটাগং চেম্বার ও বিসিইর সময়োপযোগী এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে এ ধরনের আরো কর্মসূচি গ্রহণের অনুরোধ জানান এবং এ অনুষ্ঠানকে বেসরকারি খাত, শিক্ষাবিদ এবং সরকারের মধ্যে একটি সমন্বয়ের উদাহরণ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বিশেষ করে সরকারের অগ্রাধিকার বিষয়ে আলোকপাত করেন এবং চেম্বার সভাপতির সঙ্গে একমত পোষণ করে বাংলাদেশের লক্ষ্য অর্জনে নির্বাহী শিক্ষা অত্যাবশ্যক বলে মন্তব্য করেন।

চিটাগং চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন, আমরা আজকের ওয়েবিনার জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে আয়োজন করেছি, যা সম্ভব হয়েছে এক দশক আগে প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে তার অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলে। তিনি উচ্চ শিক্ষার ক্ষেত্রে প্রযুক্তি ব্যবহারের কথা বলেন। বিশেষ করে প্রথম সারির এবং মধ্যম সারির ব্যবস্থাপনা নির্বাহীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে গুণগত মানোন্নয়ন জরুরি। কেননা তারা বেসরকারি খাতের উন্নয়নের মাধ্যমে উন্নত দেশ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে নেতৃত্ব দেবে। চেম্বার সভাপতি এ পরিপ্রেক্ষিতে কীভাবে অনলাইন প্লাটফর্মকে উচ্চমানসম্পন্ন নির্বাহী শিক্ষা প্রদান করা যায় এবং এক্ষেত্রে প্রস্তুতি, সীমাবদ্ধতা এবং কী সুযোগ রয়েছে তা বিস্তারিত আলোচনার আহ্বান জানান।

আইবিএর পরিচালক প্রফেসর সৈয়দ ফারহাত আনোয়ার বলেন, আইবিএ অনলাইন এক্সিকিউটিভ এডুকেশন প্রদানের লক্ষ্যে প্রস্তুত রয়েছে এবং বর্তমানে বিভিন্ন খাত বিষয়ক কর্মসূচি চলমান রয়েছে। তিনি অন্যান্য খাতের ওপর শিক্ষাক্রম চালুর প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে উল্লেখ করে চিটাগং চেম্বার এবং বিসিইর সঙ্গে যৌথভাবে চট্টগ্রাম অঞ্চলে মানসম্পন্ন এক্সিকিউটিভ এডুকেশন চালুর আগ্রহ ব্যক্ত করেন।