জুন ১৩, ২০২৪

আমাদের সম্পর্কে আরো জানুনঃ

২০২০ সালেই এইচআইভি পরীক্ষা সেবা চালু হবে – স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০২০ সালেই সারাদেশে এইচআইভি/এইডস্ টেস্টিং সেবা চালু করা হবে।  একথা বলেছেন, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক।

তিনি রোববার সকালে রাজধানীর মনিপুরি পাড়াস্থ কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ‘বিশ^ এইডস দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

এইচআইভিতে আক্রান্তের হারের দিক থেকে বাংলাদেশ এখন অনেক ভালো অবস্থায় আছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,সারা বিশে^ যেখানে ৪ কোটি মানুষ এইচআইভি/ এইডস রোগে আক্রান্ত সেখানে বাংলাদেশে বর্তমানে ১৪ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যা বিশে^র তুলনায় মাত্র শুন্য দশমিক শূণ্য এক শতাংশ।

তিনি বলেন, এই রোগ যাতে দ্রুত শনাক্ত করা সম্ভব হয় এবং একজন থেকে অন্যজনের দেহে বাসা বাধতে না পারে তার জন্য ২০২০ সালেই গোটা দেশে এইচআইভি পরীক্ষা সেবা চালু করা হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম, এইচআইভি ফোকাল পার্সন ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রীনা পারভীন, ইউএনএফপিএ’র বাংলাদেশ প্রতিনিধি ড. আসা টরকিলসন,বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার বাংলাদেশ প্রতিনিধি ড. মিয়া স্বপল ও এসটিআই/এইডস নেটওয়ার্ক অব বাংলাশের প্রতিনিধি আবু ইউসুফ চৌধুরী বক্তৃতা করেন।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা এইডস প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধির ওপর জোর গুরুত্ব দিয়ে এইডস হলে তা লুকিয়ে না রেখে অন্যান্য অসুখের মতোই সময়মত চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ প্রদান করেন।

পরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এইডস সচেতনতা সংক্রান্ত একটি মেলার উদ্বোধন ও তা পরিদর্শন করেন।

 

Facebook
Twitter
LinkedIn
Pinterest
Reddit